Coming Up Mon 6:00 PM  AEST
Coming Up Live in 
Live
Bangla radio

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী একজন কিশোরের দীর্ঘ সংগ্রাম এবং একটি ছোট ব্যবসা শুরুর গল্প

Susanna and Luca Source: SBS

কিশোর লুকা ওয়েবারসহ অস্ট্রেলিয়ায় ৫৭৫,০০-এরও বেশি মানুষ অন্ধ বা কম দৃষ্টিশক্তি সম্পন্ন। শারীরিক প্রতিবন্ধীদের জন্য যখন চাকরি পাওয়া কঠিন, তাই - লুকার বাবা-মা তাকে তার নিজের ছোট ব্যবসা শুরু করতে সাহায্য করছেন।

গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলো

  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী কিশোর লুকা খুব ছোটবেলা থেকেই মাথার টিউমারের কারণে ধীরে ধীরে অন্ধত্ববরণ করে
  • বুকমার্ক এবং ক্রিসমাস কার্ডের পাশাপাশি, লুকা রেস্তোরাঁর মেনু এবং এমনকি বইয়ের জন্য ব্রেইল ইনসার্ট তৈরি করছে
  • সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে যে ৮৩ শতাংশ নিয়োগকর্তা অন্ধ কাউকে নিয়োগের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী নন

আসন্ন ক্রিস্টমাস এবং নতুন বছরের জন্য লুকা ওয়েবার অবশ্যই সবার জন্য শান্তি কামনা করে।

সিডনির এই কিশোরটি অন্ধ, এবং তার নিজের মতো যারা আছে তাদের জন্য একটি ছোট ব্রেইল ব্যবসা শুরু করেছে, যেমন তার মা সুজানা ব্যাখ্যা করে বলেন, "ক্রিসমাসের জন্য আমাদের কাছে প্রচুর অর্ডার আসছে। ব্যবসাটি খুব ব্যস্ত হতে চলেছে।"

তিনি বলেন,"লুকা একজন বিশেষজ্ঞ এবং সে ব্রেইল কার্ড এবং বুকমার্ক বানানোর ব্যবসার প্রস্তাব পায়। এগুলো দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য।"

বুকমার্ক এবং ক্রিসমাস কার্ডের পাশাপাশি, লুকা রেস্তোরাঁর মেনু এবং এমনকি বইয়ের জন্য ব্রেইল ইনসার্ট তৈরি করছে।

তিনি আশা করেন এতে অন্ধ ও স্বল্পদৃষ্টিসম্পন্ন অস্ট্রেলিয়ানদের দৈনন্দিন জীবন আরও সহজ হবে।

এবং আরেকটি কারনে এই ব্যবসার প্রতি সুজানা আগ্রহ, তিনি ভয় পান যে তার ১৯ বছর বয়সী ছেলের জন্য কাজ খুঁজে পেতে কষ্ট করতে হবে।

তিনি বলেন, "লুকা গত বছরের শেষের দিকে স্কুল শেষ করেছে। সাধারণত তার বয়সীরা প্রশিক্ষণ, পড়াশোনা, যা-ই হোক না কেন করে থাকে - কিন্তু যেখানে বেকারত্বের হার এমনিতেই বেশি, সেখানে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য তো আরো কঠিন। আমরা চাইনা লুকা তার বাকি জীবন বসে বসে কাটাক।"

দুঃখজনকভাবে ভিশন অস্ট্রেলিয়াও তাদের সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখেছে যে সীমিত দৃষ্টিশক্তি সম্পন্ন লোকেদের জন্য নিয়োগ পাওয়া কতটা কঠিন হতে পারে।

ক্রিস এডওয়ার্ডস ভিশন অস্ট্রেলিয়ার গভর্নমেন্ট রিলেশনস এবং অ্যাডভোকেসি ম্যানেজার। তিনি নিজে একজন অন্ধ – তিনিও এই চরম বাস্তবতার কথা জানেন।

তিনি বলেন, "কাজ পাওয়া এমনিতেই কঠিন, কিন্তু আপনি যখন অন্ধ এবং কম দৃষ্টিশক্তি, এটি তখন আরো কঠিন। সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে যে ৮৩ শতাংশ নিয়োগকর্তা অন্ধ কাউকে নিয়োগের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী নন। তাছাড়া শুধুমাত্র ২৪ শতাংশ লোক যারা অন্ধ বা কম দৃষ্টিশক্তি সম্পন্ন তারা ফুল টাইম কাজ করে, যা একটি উদ্বেগজনক পরিসংখ্যান।"

লুকা শিশু বয়সেই দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছিল এবং তার বাবা-মা জার্মানি থেকে এসেছিলেন। সুজানা ব্যাখ্যা করেন প্রায় দুই দশক ধরে কতটা 'উত্থান-পতনের' মধ্য দিয়ে তারা জীবনযাপন করেছেন।

"লুকা ছয় মাস বয়সে ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হয়েছিল এবং এটি এখনও অপটিক স্নায়ুর উপর অবস্থান করছে এবং এর ফলে ধীরে ধীরে তার দৃষ্টিশক্তির অবনতি ঘটে; তারপর দুই বছর বয়সে, সে সম্পূর্ণভাবে অন্ধ হয়ে যায়। অনেকগুলো অস্ত্রোপচার হলেও এই মুহূর্তে ওর অবস্থা স্থিতিশীল এবং বেশ ভালো আছে।"

তবে তারা বলেছে যে তার টিউমার এখনও সেখানে আছে, তার ৪০টিরও বেশি পরীক্ষামূলক চিকিৎসা হয়েছে যার জন্য খরচ হয় দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার ডলার।

তবুও ডাক্তাররা তার দৃষ্টি ফেরানোর কোন আশা দিতে পারেন নি।

প্রতিবন্ধী তরুণ অস্ট্রেলিয়ানদের অনেক পরিবারের মতো, লুকার বাবা-মা তার ছোট উদ্যোগকে সাফল্য দিতে সাহায্য করছেন।

ভিশন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিস এডওয়ার্ডস ব্যাখ্যা করে বলেন, "ছোট ব্যবসা হল অন্ধ এবং স্বল্প দৃষ্টিসম্পন্ন লোকেদের জন্য একটি প্রকৃত বিকল্প এবং আমরা আরো মানুষদের এ ধরণের কাজে উৎসাহিত করার জন্য কাজ করছি।"

যেহেতু আধুনিক কম্পিউটারগুলি লিখিত শব্দকে কথায় রূপান্তর করতে পারে, ক্রিস এডওয়ার্ডস আশা করেন এতে নতুন কর্মক্ষেত্রের সুযোগ তৈরি হতে পারে।

কিন্তু তিনি বলেছেন আপাতত সীমিত দৃষ্টিসম্পন্ন লোকদের কর্মসংস্থানের হার ২০ বছরে খুব কমই উন্নত হয়েছে।

তিনি বলেন, "নিয়োগকারীদের মধ্যে একটি ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে যে কর্মক্ষেত্রে অন্ধ এবং কম দৃষ্টিশক্তি সম্পন্ন ব্যক্তিরা বিপজ্জনক, ৭০ শতাংশ নিয়োগকর্তা ভাবছেন যে তারা কর্মক্ষেত্রে স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরী করবে, যদিও এর পিছনে কোনও প্রমাণ নেই।"

লুকার জন্য, ব্রেইল ইনসার্টের কাজ শুধুমাত্র অন্ধ এবং স্বল্পদৃষ্টিসম্পন্ন অস্ট্রেলিয়ানদের সাহায্য করা নয়।

তিনি তার সাপোর্ট ওয়ার্কার, শিল্পী ইসোবেল ব্লেয়ারের সাথেও সহযোগিতা করছেন, হাতে আঁকা ব্রেইল শুভেচ্ছা কার্ড তৈরি করছেন৷

তারা আফগানিস্তানে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা, যুদ্ধের সার্জারি হাসপাতাল এবং প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য তহবিল সংগ্রহের জন্য কার্ড বিক্রি করছে।

লুকা বলে "দেশটি দরিদ্র এবং তারা কোন খাবার পায় না।"

লুকা জানে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের জন্য প্রতিটি দিন অতিবাহিত করা কতটা কঠিন।

সুজানা আশা করেন যে এই নতুন উদ্যোগ তাকে একদিন সাধারণ জীবনযাপন করার মতো আয় এনে দেবে।

তিনি বলেন, "আমাদের লক্ষ্য ও যাতে শেষ পর্যন্ত নিজের মতো করে বাঁচতে পারে বা তার পছন্দের মানুষদের সাথে থাকতে পারে।"

সুজানা বলেন," আমরা লুকাকে নিয়ে অত্যন্ত গর্বিত। হ্যাঁ এটি বিশাল ব্যাপার। এটি একটি দুর্দান্ত সাফল্যের গল্প।"

পুরো প্রতিবেদনটি বাংলায় শুনতে উপরের অডিও প্লেয়ারে ক্লিক করুন। 

Follow SBS Bangla on FACEBOOK.

Coming up next

# TITLE RELEASED TIME MORE
দৃষ্টি প্রতিবন্ধী একজন কিশোরের দীর্ঘ সংগ্রাম এবং একটি ছোট ব্যবসা শুরুর গল্প 18/11/2021 08:08 ...
অস্ট্রেলিয়ার ৩১তম প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন লেবার নেতা অ্যান্থনি আলবানিজি, চমক দেখালো গ্রীনস এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা 22/05/2022 06:06 ...
ফেডারেল নির্বাচন ২০২২: ভোট গ্রহণ পর্ব শেষ, শুরু হয়েছে ভোট গণনা 21/05/2022 04:59 ...
বাংলাদেশের সাম্প্রতিক খবর: ২১ মে ২০২২ 21/05/2022 10:03 ...
সেটেলমেন্ট গাইড: আপনার সন্তানদের জন্য যেভাবে হাই স্কুল নির্বাচন করবেন 20/05/2022 09:16 ...
‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’র রচয়িতা আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুবরণ 20/05/2022 07:18 ...
আসন্ন নির্বাচনে নতুন সরকারের কাছে কী প্রত্যাশা করছে বাংলাভাষী কম্যুনিটি? 19/05/2022 07:05 ...
“শরৎকালটা যে বর্ণিল হতে পারে, এটা তুলে ধরার জন্যই আমরা কালার্স অফ অটাম অনুষ্ঠানটি করছি” 18/05/2022 12:27 ...
ইলেকশান এক্সপ্লেইনার: নির্বাচনের সময় শুনতে পাওয়া বিভিন্ন পলিটিক্যাল জার্গনের অর্থ কী 18/05/2022 09:00 ...
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ উদযাপন করছে ঢাবি-ফোরাম অ্যাডিলেইড 17/05/2022 12:07 ...
View More