Coming Up Sat 6:00 PM  AEDT
Coming Up Live in 
Live
Bangla radio

অস্ট্রেলিয়ায় স্টুডেন্ট ভিসার জন্য কী করবেন?

Source: Getty Images

বহু-বর্ণিল সাংস্কৃতিক বৈচিত্র, সহজ-সরল জীবনযাত্রা এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সুনাম রয়েছে। এদেশে রয়েছে বিশ্ব-মানের বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, গবেষণার সুযোগ-সুবিধা এবং সমৃদ্ধ গ্রন্থাগার। আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীরা তাই অধ্যয়নের জন্য অস্ট্রেলিয়াতে আসতে চান।

হাইলাইটস

আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সমস্ত শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান এবং কোর্সগুলোর তালিকা দেওয়া হয়েছে CRICOS ওয়েবসাইটে।

স্টুডেন্ট ভিসা (সাবক্লাস ৫০০) এর অধীনে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীরা পাক্ষিক ৪০ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজ করতে পারেন।

অধ্যয়ন শেষ করার পর টেম্পোরারি গ্রাজুয়েট ভিসা (সাবক্লাস ৪৮৫) কিংবা স্কিলড রিকগনাইজড গ্রাজুয়েট ভিসা (সাবক্লাস ৪৭৬) এ আবেদন করা যায়।


অস্ট্রেলিয়ায় আসার আগে

আপনি যদি আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী হন এবং অস্ট্রেলিয়ায় অধ্যয়ন করতে চান, তাহলে আপনাকে স্টুডেন্ট ভিসা (সাবক্লাস ৫০০) গ্রহণ করতে হবে।

এই ভিসা পাওয়ার উপযুক্ততা লাভের জন্য আপনাকে কমনওয়েলথ রেজিস্টার অফ ইনস্টিটিউশন্স অ্যান্ড কোর্সেস ফর ওভারসিস স্টুডেন্ট (CRICOS) এর তালিকাভুক্ত কোনো কোর্সে পূর্ণকালীন শিক্ষা গ্রহণের জন্য গৃহীত হতে হবে।

ল ফার্ম হোল্ডিং রেডলিক-এর লিগ্যাল স্পেশালিস্ট এবং মাইগ্রেশন এজেন্ট মারিয়া জোকেল বলেন, ভিসার আবেদন করার আগে এটা জরুরি যে, নিবন্ধিত অস্ট্রেলিয়ান শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আপনাকে ভর্তির নিশ্চয়তা-পত্র (কনফার্মেশন অফ এনরোলমেন্ট) সংগ্রহ করতে হবে।

এটা ছাড়াও, আবেদনকারীকে আর্থিক, স্বাস্থ্য এবং চারিত্রিক শর্তসমূহও পূরণ করতে হবে; আবেদনকারীর প্রাইভেট হেলথ ইনস্যুরেন্স থাকতে হবে এবং ইংরেজি ভাষায় প্রয়োজনীয় দক্ষতা থাকার প্রমাণ হিসেবে ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ প্রফিশিয়েন্সি টেস্টেও পাশ করতে হবে।

এই ভিসার জন্য খরচ শুরু হয় ৬২০ ডলার থেকে। প্রতিবছর কতজনকে এই ভিসা প্রদান করা হবে তার কোনো নির্ধারিত সীমা নেই।

campus, university student, different heritages and backgrounds
A small group of Australian university students from different heritages and backgrounds.
Getty Images

অস্ট্রেলিয়ায় আসার পর

অস্ট্রেলিয়ায় অধ্যয়ন করার সময়ে নিজের ব্যয়-নির্বাহ করার জন্য আপনি টার্মের সময়ে পাক্ষিক ৪০ ঘণ্টা পর্যন্ত এবং হলিডেতে পূর্ণকালীন কাজ করতে পারবেন।

স্টুডেন্ট ভিসাতে আপনি একজন পরিবারের সদস্যকেও অন্তর্ভুক্ত করতে পারবেন। তিনি আপনার অধ্যয়ন করার সময়টিতে অস্ট্রেলিয়ায় আপনার সঙ্গে থাকতে পারবেন।

university lab, female medical students, Chinese ethnicity, Middle Eastern ethnicity
Two female medical students Chinese and Middle Eastern ethnicity respectably, studying anatomy in university lab using an anatomical model.
Getty Images

আপনি কোন ধরনের বিষয় ও কোর্স নিয়ে অধ্যয়ন করছেন এবং সেই কোর্সের সময়কাল অনুসারে আপনার স্টুডেন্ট ভিসার মেয়াদকাল নির্ভর করে। এই ভিসা পাঁচ বছর পর্যন্ত বর্ধিত করা হতে পারে।

মারিয়া জোকেল বলেন, ভিসা গ্রান্ট লেটারটি ভালভাবে পড়তে হবে, এটি গুরুত্বপূর্ণ। ভিসার শর্তগুলো সম্পর্কে আপনাকে জানতে হবে।

কোনো শিক্ষার্থী যদি তার ভিসার শর্ত লঙ্ঘন করেন তাহলে ডিপার্টমেন্ট অফ ইমিগ্রেশন তার ভিসা বাতিল করতে পারে, বলেন তিনি।

graduate students, campus, Australia
Outside the Australian campus, graduate students, wearing graduation gown and cap, happy and embracing.
Getty Images

অধ্যয়ন শেষ হওয়ার পর

আপনার কোর্সের গ্রাজুয়েশন ডেটের আগেই আপনার স্টুডেন্ট ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে যেতে পারে। যদি এ রকম ঘটনা ঘটে, সেক্ষেত্রে আপনি হয়তো ভিজিটর ভিসার (সাবক্লাস ৬০০) জন্য আবেদন করতে পারবেন।

অধ্যয়ন শেষ করে যদি আপনি লম্বা সময় থাকতে চান, সেক্ষেত্রে আপনি টেম্পোরারি গ্রাজুয়েট ভিসা (সাবক্লাস ৪৮৫) কিংবা স্কিলড রিকগনাইজড গ্রাজুয়েট ভিসা (সাবক্লাস ৪৭৬) এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

টেম্পোরারি গ্রাজুয়েট ভিসা (সাবক্লাস ৪৮৫) এর দুটি স্ট্রিম বা ভাগ রয়েছে: গ্রাজুয়েট ওয়ার্ক এবং পোস্ট-স্টাডি ওয়ার্ক।

গ্রাজুয়েট ওয়ার্ক স্ট্রিমে শিক্ষার্থীরা ১৮ মাস পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ায় অধ্যয়ন ও কাজ করতে পারেন।

পোস্ট-স্টাডি ওয়ার্ক স্ট্রিমে আবেদনকারীরা অস্ট্রেলিয়ায় লম্বা সময়ের জন্য কাজ করতে পারেন; সাধারণত, দুই থেকে চার বছর পর্যন্ত সময়ের জন্য।

স্কিলড রিকগনাইজড গ্রাজুয়েট ভিসা (সাবক্লাস ৪৭৬) ডিজাইন করা হয়েছে মূলত ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রাজুয়েটদের জন্য; যারা বিগত দুই বছরের মধ্যে কোনো সুনির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে ডিগ্রি বা উচ্চতর যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

আরও তথ্যের জন্য দেখুন: Department of Immigration and Border Protection কিংবা CRICOS website.

Follow SBS Bangla on FACEBOOK.

This story is also available in other languages.