Coming Up Sat 6:00 PM  AEST
Coming Up Live in 
Live
Bangla radio

আপনার সন্তান অনলাইনে পর্নোগ্রাফি দেখছে? উদ্বিগ্ন না হয়ে বরং যা করতে হবে

Source: shutterstock

আপনার সন্তান এমন কিছু অনলাইনে দেখছে যা তাদেরকে বিচলিত করছে, কিন্তু এক্ষেত্রে আপনি তাদের আশ্বস্ত করুন বিষয়টি জানলেও আপনি তাদের ওপর রাগ করবেন না, বরং তাদের এমন কিছু উপদেশ দিন যা তাদের কাজে লাগবে। এ বিষয়ে লিখেছেন ইউনিভার্সিটি অফ সিডনির ডিজিটাল এন্ড সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের প্রফেসর এলান ম্যাককী।

করোনাভাইরাস লকডাউনের কারণে ২০২০ সাল জুড়ে ছিল অনলাইন শিক্ষা, এবং সেইসাথে অতিমাত্রায় অনলাইন বিনোদন লাভের প্রচেষ্টাও ছিল লক্ষণীয়। এই বছরে মানুষ এতোবেশি পর্নোগ্রাফি দেখেছে যা আগে কখনো হয়নি। পর্নহাব নামের ওয়েবসাইটটি বলেছে এ বছরে তাদের পর্ন ভিউ বেড়েছে ২৪ শতাংশ বেশি।  

কিন্তু বিষয় হচ্ছে এটা শুধু প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। কোন কোন সূত্রে দেখা গেছে ১১ বছর বয়সেই বাচ্চারা পর্নোগ্রাফি দেখতে শুরু করে। এই পরিসংখ্যান স্বভাবতঃই বাবামায়েদের অস্বস্তিতে ফেলে দেবে। 

এই পরিস্থিতিতে বাবামায়েদের জন্য তাদের সন্তানদের পর্ন নিয়ে সোজাসাপ্টা, বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দেয়া সত্যিই দুরূহ।  

এই সমস্যা সমাধানে আমাদের একটি টীম কাজ করেছে যেখানে সাইকোলজি, সেক্সলজি, সোসিওলজি এবং মিডিয়া স্টাডিজের বিশেষজ্ঞরাও আছেন। তারা গত তিন বছরে প্রায় ২,০০০ গবেষণাপত্র রিভিউ করেছেন যেখানে পর্নোগ্রাফি দেখার সাথে সুস্থ কিংবা অসুস্থ যৌন বিকাশের সম্পর্ক কি তা বোঝার চেষ্টা করেছেন। 

আমরা প্রাপ্ত তথ্য থেকে একটি সহজ ভাষায় ফ্যাক্টশিট তৈরী করেছি যাতে উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা মূল বিষয়গুলো থেকে পরামর্শ পেতে পারেন। এখানে বর্ণনা করা হয়েছে আপনার যা জানতে হবে।  

বাচ্চারা আচমকা পর্নোগ্রাফি দেখে ফেললে কি করবেন? 

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে - আতঙ্কিত হবেন না! আপনি যদি বাচ্চাদের সঠিকভাবে সাহায্য করেন তবে পর্ন দেখার ক্ষতি থেকে তারা রক্ষা পাবে। 

প্রথমেই যেটা জানা জরুরি তা হলো - আপনার বাচ্চাকে নিশ্চিত করুন যে পর্নই যৌনতা সম্পর্কে জানার একমাত্র উৎস নয়। বিস্তারিত, বয়স-উপযোগী যৌন শিক্ষা অনেক গুরুত্বপূর্ণ - আর এই শিক্ষাটা তারা জানবে অভিভাবক হিসেবে আপনার কাছ থেকে এবং তাদের স্কুল থেকে।  

এ বছর প্রচুর শিক্ষার্থী বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করেছে, তাই বাবামায়েদের ভূমিকা এখানে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যৌন শিক্ষা মানে এই নয় যে এতে তারা অল্প বয়সেই যৌনতার অভিজ্ঞতা পাবে। বরং এটা প্রমাণিত যে উল্টোটাই সত্যি। 

তবে হ্যাঁ, সন্তানদের সাথে যৌন বিষয়ে কথা বলাটা বিব্রতকর। তাই Talk Soon Talk Often নামক একটি দারুন বুকলেট আছে এটি দেখতে পারেন, এতে বলা আছে কিভাবে আপনি বাচ্চাদের সাথে যৌন বিষয়ে কথা বলবেন।  

অনেক সময় ছোট বাচ্চারা বাবামায়েদের কিছু জিজ্ঞাসা করতে শুরু করে, যেমন তারা জিজ্ঞাসা করে 'শিশুরা কোত্থেকে আসে?' - এক্ষেত্রে সততার সাথে উত্তর দিন, বয়স উপযোগী তথ্য দিন, আগ বাড়িয়ে বেশি তথ্য দেয়ার দরকার নেই, এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আপনি বিব্রত হচ্ছেন এমন ভাব করবেন না।  

আপনি স্বাভাবিকভাবেই উত্তর দিন, এবং বুঝতে দিন যে আপনি খুশি মনেই প্রশ্নের জবাব দিচ্ছেন।  

এতে পরের বার আরো সহজ হবে আপনার জন্য। গবেষণায় দেখা যায় যে বয়ঃসন্ধির পূর্বে বাচ্চারা যদি আচমকা অনভিপ্রেত কিছু দেখে ফেলে তবে তারা খুব বিচলিত হয়ে পড়ে, তারা ধরে নেয় তাদের বাবামায়েরা এতে রেগে যাবে।

Mother child
Open communication is the best way to ensure your kids won’t be harmed by what they see online.
shutterstock

তাই আপনি বাচ্চাদের এটা নিশ্চিত করুন যে হঠাৎ তাদের অনুপযোগী কিছু দেখে ফেললে এবং এ বিষয়ে আপনাকে জানাতে চাইলে আপনি ওদের ওপর রাগ করবেন না।  

কিন্তু তারা যদি পর্নোগ্রাফি দেখার জন্য খুঁজে, তখন কি করণীয় 

অবশ্যই, বয়ঃসন্ধির পর অবস্থা পরিবর্তন হবে - তখন তারা বরং বয়স অনুপযোগী কন্টেন্ট বা পর্ন ম্যাটেরিয়াল খুঁজে বেড়াবে। 

তাই আবারো এখানে বিস্তারিত যৌন শিক্ষা এবং মুক্ত আলোচনা জরুরী। যদি তারা যৌন বিষয়ে ইতিমধ্যে জেনে থাকে, তবে এ বিষয়ে তথ্য খুঁজে পেতে চাইবে না।  

বেশিরভাগ পর্নই যৌন শিক্ষার ক্ষেত্রে অকার্য্যকর। যেমন, এটি যৌনতার জন্য যে ব্যক্তির অনুমোদন (কনসেন্ট) প্রয়োজন তা বলে না। এজন্য আপনি আপনার সন্তানদের তাদের পার্টনারদের সাথে যৌন বিষয়ে কিভাবে কথা বলতে হবে এবং এ ব্যাপারে তারা যাতে সঠিক আচরণ করে এই বিষয়টি নিশ্চিত করুন। শুধু তাই নয় তারা জীবনের এক পর্যায়ে যখন সঙ্গীদের সাথে মেলামেশা করবে তখন তাদের আচরণ কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা মনে করিয়ে দিন। 

তাদেরকে সঙ্গীদের পছন্দ অপছন্দের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করার গুরুত্ব সম্পর্কে অবহিত করুন, তারা এক্ষত্রে কি করা উচিত বা অনুচিত, এবং কত দ্রুত বা ধীরগতিতে এসব বিষয়ের মুখোমুখি হবে এ বিষয়ে বলুন।  

তাদেরকে বলুন সঙ্গীদের কাছ থেকে কনসেন্ট বা অনুমতি নেয়ার বিষয়টি চলমান প্রক্রিয়া - একবার অনুমতি পাওয়া গেছে মানে সবসময়ের জন্যই তা প্রযোজ্য ব্যাপারটি এমন নয়, কোন কোন সময় তার সঙ্গী 'না' বলতে পারে এবং তা সহজভাবে নেয়া উচিত। তার সঙ্গী যদি 'থামতে' বলে, নিশ্চিত করুন আপনার সন্তান সঠিকভাবে সাড়া দিচ্ছে, তাকে বলুন এরপরেও তাকে রাজি করানোর চেষ্টা করা অনুচিত, এজন্য তার সাথে বাজে আচরণ কাম্য নয়, বরং জিজ্ঞাসা করা উচিত তার খারাপ লাগছে কিনা, এবং উত্তরগুলো মন দিয়ে সততার সাথে শুনতে উপদেশ দিন।  

যে কোন ধরনের যৌন প্রয়াসের ক্ষেত্রে উভয়ের সম্মতিই কাম্য। 

অভিভাবকদের জন্য শেষ যে চ্যালেঞ্জটি  

বাবামায়েদের জন্য যে চূড়ান্ত চ্যালেঞ্জটি আছে তা হলো আপনার যে প্রচলিত যৌন ধারণা বা মূল্যবোধ, পর্নোগ্রাফি তা আপনার সন্তানদের শেখাবে না।

পর্নোগ্রাফি নির্মাতারা দেখায় যৌনতা মানেই হচ্ছে সুড়সুড়ি এবং তামাশার বিষয় - ভালোবাসা বা প্রজননের ধারণা এখানে অনুপস্থিত। তাই আপনি নিশ্চিত করুন আপনি আপনার সন্তানদের যৌনতার সঠিক উদ্দ্যেশ্য ব্যাখ্যা করছেন, এবং তা করছেন সততার সাথে এবং মুক্তমনে।

যৌনতা বিষয়ে আপনার মূল্যবোধ কি এবং কেন তা আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ তা ব্যাখ্যা করার জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকুন।  

তবে হ্যাঁ, এরকম পরিস্থিতি খুবই চ্যালেঞ্জিং হতে পারে কারো জন্য - বিশেষ করে শিশুরা যেখানে বড় হচ্ছে এবং নিজেদের জীবনে যৌন বিষয়ে নিজস্ব ভাবনা গড়ে উঠছে সেখানে মুক্তভাবে কিছু বলা দুরূহ।  

তবে কোন কোন সংস্কৃতিতে এ ধরণের বিষয়গুলো সহনীয়। যেমন, দা নেদারল্যান্ডসের সমাজে সন্তানরা বাবামাকে যৌন বিষয়ে পরামর্শ পেতে জিজ্ঞাসা করতে পারে এবং এ ধরণের উপদেশ তারা মূল্যায়ন করে।  

এবং সবসময় মনে রাখবেন, মুক্ত আলোচনার মাধ্যমে আপনি আপনার সন্তানকে যৌন উপাদানযুক্ত কনটেন্ট দেখার ক্ষতি থেকে বিরত রাখতে পারবেন। তা না হলে সময় পেলেই তারা অনলাইনে অনুপযুক্ত কনটেন্ট দেখতে থাকবে।  

(মূল ফীচারটি লিখেছেন এলান ম্যাককী, তিনি ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি সিডনির আর্টস এন্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস বিভাগের ডিজিটাল এন্ড সোশ্যাল মিডিয়ার প্রফেসর। বাংলায় অনুবাদ করেছেন শাহান আলম।)  

আরো দেখুন:

 

Source The Conversation