SBS Radio App

Download the FREE SBS Radio App for a better listening experience

Advertisement
মুসলিমদের দাফন করার জন্য ৫০০০ কবরের জায়গা দিচ্ছে সিডনির ক্যাথলিক ধর্মাবলম্বীরা। পশ্চিম সিডনির কেম্পস ক্রিক ক্যাথলিক কবরস্থান থেকে জরুরি ভিত্তিতে দাফনের এ জায়গা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন, ক্যাথলিক কবরস্থান বোর্ডের প্রধান নির্বাহী পিটার ও’মিয়ারা।
Bangla
By
Hasan Tariq, Presented by
Hasan Tariq

Source:
SBS Bangla
21 Jun 2018 - 9:19 PM  UPDATED 28 Jun 2018 - 10:01 AM

মুসলিমদের দাফন করার জন্য ৫টি কবরস্থান আছে সিডনিতে। তার মধ্যে সবচেয়ে বড় কবরস্থান রুকউড। প্রায় সাড়ে নয় একর জায়গায় এখন পর্যন্ত ৬ হাজার মুসলিমকে দাফন করা হয়েছে এ কবরস্থানে।

শিগগিরি শেষ হয়ে যাবে রুকউড কবরস্থানে মুসলিমদের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা। রিভারস্টোন কবরস্থানেও বাকি আছে মাত্র ৫০টি কবরের জায়গা, যেখানে এরিমধ্যে দাফন করা হয়েছে ১২৫০ জন মুসলিমকে। 

এসবিএস বাংলা ফেইসবুক পেইজ। 

এমন অবস্থায় গভীর দুশ্চিন্তায় পড়েছিলেন রিভারস্টোন মুসলিম কবরস্থান বোর্ডের চেয়ারম্যান কাজী খালেকুজ্জামান আলী। অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী এই বাংলাদেশি ১৯৮০ সালে আরও কয়েকজন মুসলমানের সহায়তায় রুকউড কবরস্থানে মুসলিমদের জন্য জায়গা করে নিয়েছিলেন। 

"ভীষণ দুশ্চিন্তা হচ্ছিল যে, আমরা কোথায় যাব? কাউন্সিল জমি দিচ্ছে না! সরকার জায়গা বরাদ্ধ করছে না," বলেছেন কাজী আলী।  

মুসলিমদের এমন সংকট মুহূর্তে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সিডনির ক্যাথলিক ধর্মাবলম্বীরা। কেম্পস ক্রিক ক্যাথলিক কবরস্থান থেকে দেয়া হচ্ছে ৫ একর জায়গা। ৩০ মে অর্থাৎ রমজান মাসেই এ সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন, পিটার ও’মিয়ারা এবং কাজী খালেকুজ্জামান আলী।

"মুসলিম সম্প্রদায়ের সাথে জড়িত হতে পেরে আমরা গর্বিত। আন্তধর্মীয় সহযোগিতার এ সম্পর্ক দীর্ঘ করতে আমরা উম্মুখ," বলেছেন পিটার ও’মিয়ারা। 

"আমরা ঈশ্বরে বিশ্বাস করি। মুসলিম, ইহুদি, খ্রিষ্টান যারা কবর দেওয়ায় বিশ্বাসী, তাদের কবরের জায়গার জন্য আমাদের আছে যথেষ্ট জমি।" 

ক্যাথলিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে কাজী আলী বলেন, "এর ফলে আগামী কয়েক প্রজন্মকে আর এই নিয়ে চিন্তা করতে হবে না।"

এখানে মুসলিমদেরকে ইসলামি শরিয়াহ মোতাবেক দাফন করা হবে। ক্রিসমাস এবং ঈদের দিনসহ বছরের কোন সময়ই দাফন বন্ধ থাকবে না বলেও জানান তিনি।

"অন্য কবরস্থানগুলোর তুলনায় কেম্পস ক্রিকে দাফন খরচ কম পরবে। শিশু এবং সর্বহারাদের বিনা পয়সায় দাফন করা হবে।"

কেম্পস ক্রিকে মুসলিমদের কবরস্থান তৈরিতে খরচ পরবে প্রায় ৪ মিলিয়ন ডলার। প্রতি কবরের জন্য ৬ হাজার ৭০০ ডলার ও দ্বৈত কবরের জন্য ৭ হাজার ৪৪১ ডলার দিতে হবে। তিন বছর মেয়াদী কিস্তিতেও কবরের জায়গা কেনার সুযোগ আছে কেম্পস ক্রিক কবরস্থানে।

আর কিছুদিন পর থেকেই কেম্পস ক্রিক কবরস্থানে মুসলিমদের দাফন করা যাবে বলে জানিয়েছেন কাজী খালেকুজ্জামান আলী। 

আরো খবরঃ
৯০০ স্কুল শিক্ষক নিয়োগ দিবে এনএসডাব্লিউ রাজ্য সরকার
৯০০ জন পূর্ণকালীন পাবলিক স্কুল শিক্ষক নিয়োগ দিবে এনএসডাব্লিউ রাজ্য সরকার। শিশু এবং তরুণদের ভবিষ্যত সাফল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
সিডনিতে আনন্দ- উৎসবে ঈদ উদযাপন
নামাজ শেষে কোলাকুলি, তারপরই শুরু হয় 'সালামি' পর্ব। বাংলাদেশের মত অস্ট্রেলিয়াতেও এই ঈদ সালামি-র সংস্কৃতি ধরে রেখেছেন অনেকেই। কেউ কেউ আবার ছুটে গেছেন কবরস্থানে। দোয়ায় মাগফেরাত কামনা করেন পরলোকগতদের। সিডনি প্রবাসী বাংলাদেশীদের ঈদ উপযাপনের পুরো খবর জানতে ভিডিও লিংকে ক্লিক করুন।
বাংলাদেশের 'ফ্ল্যাগ গার্ল' নাজমুন নাহার

লাল- সবুজ পতাকা নিয়ে ঘুরে বেরিয়েছেন বিশ্বের ১০৫টি দেশ। চিনিয়েছেন বাংলাদেশকে, জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের কথা। বাংলাদেশি নারী হিসেবে বিরল এ কৃতিত্ব অর্জন করেছেন সুইডেন প্রবাসী নাজমুন নাহার।

কিংডম অফ লেসুথু ভ্রমণকালে এসবিএস বাংলার সাথে কথা বলেছেন নাজমুন।